ফ্রিল্যান্সিং

কোডার্সট্রাস্টের ৩০০ জন নতুন ফ্রিল্যান্সারকে সনদ এবং পুরস্কার প্রদান

৩০০ জন নতুন ফ্রিল্যান্সারকে সনদ এবং পুরস্কার প্রদান করল ডেনমার্ক-ভিত্তিক বাংলাদেশের একমাত্র ফ্রীল্যানসিং ট্রেনিংয়ের প্রতিষ্ঠান কোডারসট্রাস্ট। রাজধানীর বনানীতে কোডারসট্রাস্টের নিজস্ব ক্যা¤পাসে এই ফ্রিল্যান্সারদের হাতে সনদ ও পুরস্কার তুলে দিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি।
পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জনাব আনিসুল হক এম. পি মাননীয় মন্ত্রী আইন, বিচার এবং সংসদ বিষয়ক মন্ত্রণালয়, বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জনাব আব্দুল করিম ব্যাবস্থাপনা পরিচালক পিকেএসএফ (সাবেক মুখ্য সচিব ), ডেনমার্ক এর রাষ্ট্রদূত মিকাইল হেমনিটি উইনথের এবং জনাব নজরুল ইসলাম খান চেয়ারম্যান স্বনির্ভর বাংলাদেশ (সাবেক শিক্ষা সচিব) আরো উপস্থিত ছিলেন কোডারসট্রাস্টের সহপ্রতিষ্ঠাতা জন-কায়ো ফেবিগ এবং কান্ট্রি ডিরেক্টর এম এ জি ওসমানী।
কোডারসট্রাস্ট কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, এখানকার নতুন ৩০০ জন মেধাবী শিক্ষার্থী ফ্রিল্যান্সিং বিষয়ে প্রশিক্ষণ শেষ করে আয় করা শুরু করেছেন এবং এ পর্যন্ত ১০০০ হাজারেরও বেশি ফ্রীল্যান্সার এই প্রতিষ্ঠান প্রশিক্ষণ শেষ করে আয় করেছেন তৈরি করেছে এঁদের মধ্যে শাহেদ শোভন, মিনহাজুল ইসলাম ও নওমি জামান মাসে ২ থেকে ৩ হাজার মার্কিন ডলার আয় করে শীর্ষে রয়েছেন।
অনুষ্ঠানের শুরুতেই কোডারসট্রাস্টের সহপ্রতিষ্ঠাতা জন-কায়ো ফেবিগ গত ৩ বছর বেশি সময় ধরে বাংলাদেশে তাদের কার্যক্রমের বিভিন্ন দিক তুলে ধরে আগামী এক বছরের মধ্যে দশ হাজার ফ্রীল্যান্সার গড়ে তোলার পরিকল্পনার কথা তুলে ধরেন।
মন্ত্রী বললেন, বর্তমান সরকার তথ্য প্রযুক্তিকে সর্বাধিক গুরুত্বপূর্ণ খাতগুলির মধ্যে অন্যতম হিসেবে বিবেচনা করে এ খাতে সবধরেন সরকারি সুযোগ সুবিধা বাড়ানো হচ্ছে। তিনি আরো বলেন উন্নতমানের পৰশিক্ষণ প্রদান করে দক্ষ জনশক্তি গড়ে তুলতে পারলে অনলাইন ফ্রীল্যানসিং মাধ্যমে অনেক বেশি বৈদেশিক মুদ্রা উপার্জন করা সম্ভব হবে। ইতোমধ্যে প্রশিক্ষণ খাতে সরকারের বিভন্ন কার্ক্রম উল্লেখ করেন এবং বেসকারি পর্যায়ে কোডার্সট্রাস্টের ভূমিকার প্রশংসা করেন।
ডেনমার্ক এর রাষ্ট্রদূত বলেন, কোডার্সট্রাস্ট ড্যানিশ উন্নয়ন সংস্থা ডানিডা এর সহায়তায় বাংলাদেশে কাজ শুরু করে এবং প্রতিষ্ঠানটির সফলতার দেখে ভবিষ্যতে আরো সাহায্যের জন্য এগিয়ে আসার প্রত্যয় ব্যাক্ত করেন।
সাবেক সাবেক মুখ্য সচিব এবং পিকেএসএফ এর ব্যাবস্থাপনা পরিচালক আব্দুল করিম বলেন, বর্তমান তরুণ সমাজকে এই ফ্রীল্যানসিং প্রশিক্ষণের আওতায় আন্তে পারলে দেশের বেকার সমস্যার অনেকটাই কমে যাবে। ভবিষ্যতে পিকেএসফ এবং কোডার্সট্রাস্ট এক সাথে কাজ করার কথাও উল্লেখ করেন তিনি।
অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন জনাব নজরুল ইসলাম খান চেয়ারম্যান স্বনির্ভর বাংলাদেশ (সাবেক শিক্ষা সচিব), তিনি বলেন কোডার্সট্রাস্ট এর কারিগরি সহায়তায় ইতোমধ্যেই স্বনির্ভর বাংলাদেশে একটি প্রশিক্ষণ শুরু হয়েছে এবং ভবিষ্যতে এটি চলমান থাকবে। পরে আগত অতিথিরা শিক্ষার্থীদের সনদ এবং পুরস্কার বিতরণ করেন। উল্লেখ্য, ডেনমার্ক-ভিত্তিক তথ্যপ্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান কোডারসট্রাস্ট ৩ বছর বেশি সময় ধরে বাংলাদেশে তাদের কার্যক্রম পরিচালনা করছে। দেশে দক্ষ ফ্রিল্যান্সার তৈরিতে কাজ করছে প্রতিষ্ঠানটি। বর্তমানে অনলাইন মার্কেটপ্লেস গুলোর কাজের চাহিদার উপর ভিত্তি করে ১০ টি বিষয়ের উপর প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়।