টেক নিউজ বিশেষ প্রতিবেদন

আপনার ফোনটি গোপনে আপনার ছবি তুলছে না তো ??

কারো বিনা অনুমতিতে বা কারো অজান্তে তাঁর কোন ব্যক্তিগত ছবি তোলা ব্যক্তি স্বাধীনতায় হস্তক্ষেপের শামিল। আর ব্যপারটা তখন দাড়ায় সাইবারক্রাইম এর মত ব্যাপারে, তবে এমন সমস্যার পরও অ্যাপল তাদের এই সমস্যা সমাধানের কোন ব্যবস্থা গ্রহণ করছে না। আর এই বিষয়টি প্রমাণ করেছেন ব্যক্তিগতভাবে অনুসন্ধান চালানো গুগল ইঞ্জিনিয়ার ফিলিক্স ক্রাউস।

প্রথমবার অ্যাপল চালু করার পর কোনো অ্যাপ ক্যামেরা ব্যবহার করতে চাইলে আইওএস ব্যবহারকারীর কাছে অনুমতি নিয়ে রাখে। অর্থাৎ আপনি প্রথম অবস্থায় তাকে অনুমতি দিয়ে দেন ক্যামেরা ব্যবহারের জন্য। তবে অ্যাপেল এই ক্যমেরা ঠিক কখন ব্যবহার করবে সেগুলা এসময়ে আপনাকে জানানো হয় নি বা হবে না। অর্থাৎ ক্যামেরার এই গোপন সিস্টেম সম্পর্কে বা ছবি তোলার ব্যাপারে কিছুই বলা নেই এই অ্যাপগুলোতে  । এর ফলে আপনি ক্যামেরা বা ফোন ব্যবহার না করলেও চালু থাকা অবস্থায় অ্যাপগুলো নিজেই ক্যামেরা ব্যবহার করে দৃশ্য ধারণ ও আপলোড করতে পারবে।

ফোনটি গোপনে আপনার ছবি তুলছে না তো

এভাবে ব্যবহারকারীর অজান্তেই তার অবস্থান ও অভিব্যক্তি টানা নজরদারীতে রাখা সম্ভব অ্যাপেলের এই অ্যাপগুলোর মাধ্যমে। এই নজরদারির কারনে অ্যাপেল আজ প্রশ্নের সম্মুখীন, এখন দেখা যাক অ্যাপেল এ বিষয়ে কি পদক্ষেপ গ্রহন করে।

তবে অ্যাপেলের এ সমস্যাটির সমাধান খুব সহজেই করা সম্ভব নয়। কেননা এই অ্যাপ বন্ধ করতে হলে আইওএস এর পারমিশন ম্যানেজার সম্পুর্ন ঢেলে সাজাতে হবে। এই নিরাপত্তা দুর্বলতা কতোটা ভয়াবহ হতে পারে ফিলিক্স তার একটি ভিডিও আপলোড করে দেখিয়েছেন।

এত কিছু হওয়ার পরও এ ব্যাপারে অ্যাপলের কাছ থেকে এখন পর্যন্ত কিছু জানা যায়নি। আসলেই তারা কবে নাগাদ এই সমস্যার সমাধান করবে বা আদৌ শুরু করে দিয়েছে কি না সে সম্পর্কে এখন পর্যন্ত কিছু জানা যায় নি।

সোর্সঃ নেক্সটওয়েব