Main Menu

টিকটকের যে ফিচারে খুশি হবেন অভিভাবকেরা!

আজকাল স্মার্টফোন ছেলেমেয়েদের হাতে থাকা মানেই বিপদ। ইন্টারনেটের দুনিয়ায় কত বিপদ যে ওঁৎ পেতে থাকে তার ইয়াত্তা নাই। এছাড়া ‘অনাকাঙ্ক্ষিত’ ভিডিও তো আছেই।

প্রাপ্তবয়স্ক ব্যবহারকারীরা ছাড়াও ইদানীং বাচ্চারাও ব্যবহার করছে সোশ্যাল মিডিয়া। আর টিকটকের জনপ্রিয়তা তো এখন সবচেয়ে বেশি, বিশেষ করে টিনেজারদের মধ্যে। ফলে টিনেজাররা বড়দের জন্য নির্মিত ভিডিও যেমন দেখতে পারে, তেমনি তাদের কাছে আসতে পারে বড়দের মেসেজও।

তাই টিকটক নিয়ে এসেছে নতুন ফিচার ‘ফ্যামিলি সেফটি মোড’। এটা রিমোটলি কাজ করবে। অর্থাৎ একজন অভিভাবক চাইলে তার অ্যাকাউন্টের সাথে তার বাচ্চার অ্যাকাউন্ট লিংক করে তার বাচ্চার অ্যাকাউন্টর বিভিন্ন দিক নিজের কাছে নিয়ন্ত্রণ নিতে পারবেন।

যেমন ভিডিও দেখার ক্ষেত্রে রেস্ট্রিকটেড মোড অভিভাবক নিজেই চালু করে দিতে পারবেন, যেটা বাচ্চার অ্যাকাউন্ট থেকে কোনোভাবেই অফ করা যাবে না। এছাড়া অভিভাবক চাইলে তার বাচ্চার মেসেজের নিয়ন্ত্রণও নিতে পারবেন। সেটার মাধ্যমে কে কে তার বাচ্চাকে মেসেজ দিতে পারবেন সেটা তিনি নিয়ন্ত্রণ করতে পারবেন। ফলে বাচ্চারা যাতে অনাকাঙ্ক্ষিত কারো সাথে মেলামেশা না করে সেটা নিয়ন্ত্রণ করা যাবে।

এক্ষেত্রে ডিজিটাল ওয়েলবিং এর মাধ্যমে সেটিংসে গিয়ে দুটি ফোন একসাথে ওপেন করতে হবে। একই সেটিংস খোলার পর অভিভাবকের ফোন থেকে কিউআর কোডের মাধ্যমে সংশ্লিষ্ট অ্যাকাউন্টের নিয়ন্ত্রণ নেওয়া যাবে। আর এই নিয়ন্ত্রণ পাসওয়ার্ড দিয়ে প্রোটেক্ট করা যাবে।

ফলে এখন থেকে আর টিকটক ব্যবহারে বাচ্চাদের কোনো বাঁধা থাকবে না। কারণ এখন অভিভাবক নিজেই নিয়ন্ত্রণ করতে পারবেন, কার সাথে মেসেজ চালাচালি করা যাবে আর কী ধরনের ভিডিও দেখা যাবে।

ধীরে ধীরে অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়াতেও যদি এমন ফিচার আসে তবে অপ্রাপ্ত বয়স্কদের ডিজিটাল বিপদ থেকে মুক্ত রাখা সম্ভব। যদিও টিকটকের এই ফিচারটি এখন শুধুমাত্র ইংল্যান্ডে ব্যবহার করা যাবে। তবে খুব শিগগির অন্যান্য দেশের টিকটক ব্যবহারকারীদের জন্যও ফিচারটি উন্মুক্ত হতে যাচ্ছে বলে জানা গেছে।



Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked as *

42 − = 33